প্রিয় পাঠক, ফিড মিলের কোয়ালিটি কন্ট্রোল ল্যাবরেটরিতে বিভিন্ন কেমিক্যাল টেস্ট করার জন্য বিভিন্ন ধরনের কেমিক্যাল সল্যুশন প্রস্তুত করতে হয়। আজকে ফিড মিল ল্যাব সমাচারের ৪র্থ পর্বে আমরা শিখব – কিভাবে এই প্রয়োজনীয় সল্যুশন গুলো তৈরি করা যায়? তো চলুন, শুরু করা যাক-

  • ৪০% সোডিয়াম হাইড্রোক্সাইড দ্রবণ প্রস্তুতঃ  ১ লিটার ডিস্টিল ওয়াটারে ৪০০ গ্রাম সোডিয়াম হাইড্রোক্সাইড ভালভাবে মিশিয়ে ৪০% সোডিয়াম হাইড্রোক্সাইড দ্রবণ তৈরি করতে হবে।
  • 0.1 N সোডিয়াম হাইড্রোক্সাইড দ্রবণ প্রস্তুতঃ  ১ লিটার ডিস্টিল ওয়াটারে ৪ গ্রাম সোডিয়াম হাইড্রোক্সাইড ভালভাবে মিশিয়ে 0.1 N সোডিয়াম হাইড্রোক্সাইড দ্রবণ তৈরি করতে হবে।
  • 0.1 N হাইড্রোক্লোরিক এসিড দ্রবণ প্রস্তুতিঃ ১ লিটার ডিস্টিল ওয়াটারে ৮.৩ মিলি ৩৭%  হাইড্রোক্লোরিক এসিড দ্রবণ ভালভাবে মিশিয়ে 0.1 N হাইড্রোক্লোরিক এসিড দ্রবণ তৈরি করতে হবে। এবং তৈরিকৃত দ্রবণের স্ট্যান্ডার্ড মান বের করে নিতে হবে।
  • হাইড্রোক্লোরিক এসিড সল্যুশনঃ ১:১ ( ১০০ মিলি ডিস্টিল ওয়াটারে ১০০ মিলি হাইড্রোক্লোরিক এসিড যোগ করে প্রস্তুত করতে হবে )।
  • সালফিউরিক এসিড সল্যুশনঃ ১:৪ ( ১০০ মিলি ডিস্টিল ওয়াটারে ২৫ মিলি সালফিউরিক এসিড যোগ করে প্রস্তুত করতে হবে )।
  • বোরিক এসিড সল্যুশনঃ ১ লিটার ডিস্টিল ওয়াটারে ৪০ গ্রাম বোরিক এসিড যোগ কোড়ে ভালোভাবে মিশাতে হবে। বোরিক এসিড মিশে গেলে এবার এই সল্যুশনের মধ্যে ১০ মিলি 0.1% মিথাইল রেড সল্যুশন এবং ৭ মিলি 0.1% ব্রোমো ক্রিসল গ্রীন সল্যুশন যোগ করে ভালকরে মিশিয়ে সল্যুশন তৈরি করতে হবে।
  • এমোনিয়া সল্যুশনঃ ১:১ ( ১০০ মিলি ডিস্টিল ওয়াটারে ১০০ মিলি এমোনিয়া যোগ করে প্রস্তুত করতে হবে)
  • এমোনিয়াম অক্সালেট সল্যুশনঃ ৪% ( ১০০ মিলি ডিস্টিল ওয়াটারে ৪ গ্রাম এমোনিয়া অক্সালেট যোগ করে প্রস্তুত করতে হবে )
  • পটাশিয়াম পার ম্যাঙ্গানেট সল্যুশনঃ 0.1 Normal ( ১০০০ মিলি ডিস্টিল ওয়াটারে ৩.৩ গ্রাম পটাশিয়াম পার ম্যাঙ্গানেট যোগ করে দ্রবণ প্রস্তুত করে হিট দিয়ে ফুটন্ত হলে ঠান্ডা করে ১ নং ফিল্টার পেপার দিয়ে ফিল্টার করতে হবে )
  • মিথাইল অরেঞ্জ সল্যুশনঃ 0.1% ( ১০০ মিলি ইথানলের সাথে ০.১ গ্রাম মিথাইল অরেঞ্জ যোগ করে 0.1% মিথাইল অরেঞ্জ সল্যুশন প্রস্তুত করতে হবে )
  • মিথাইল রেড সল্যুশনঃ 0.1% ( ১০০ মিলি ইথানলের সাথে ০.১ গ্রাম মিথাইল রেড যোগ করে 0.1% মিথাইল রেড সল্যুশন প্রস্তুত করতে হবে )
  • ব্রোমো ক্রিসল গ্রীন সল্যুশনঃ 0.1% ( ১০০ মিলি ইথানলের সাথে ০.১ গ্রাম ব্রোমো ক্রিসল গ্রীন যোগ করে 0.1% ব্রোমো ক্রিসল গ্রীন সল্যুশন প্রস্তুত করতে হবে )
  •  
  • ১.২৫% সালফিউরিক এসিড দ্রবণ প্রস্তুতঃ  ১ লিটার ডিস্টিল ওয়াটারে ১২.৭৬ মিলি সালফিউরিক এসিড ভালভাবে মিশিয়ে ১.২৫% সালফিউরিক এসিড দ্রবণ তৈরি করতে হবে।
  • ১.২৫% সোডিয়াম হাইড্রোক্সাইড প্রস্তুতঃ  ১ লিটার ডিস্টিল ওয়াটারে ১২.৫ গ্রাম সোডিয়াম হাইড্রোক্সাইড ভালভাবে মিশিয়ে ১.২৫% সোডিয়াম হাইড্রোক্সাইড দ্রবণ তৈরি করতে হবে।
  • ১০% এমোনিয়াম মলিবডেট সল্যুশনঃ  ১ লিটার ডিস্টিল ওয়াটারে ১০০ গ্রাম এমোনিয়াম মলিবডেট ভালভাবে মিশিয়ে তৈরি করতে হবে।
  • নাইট্রিক এসিড সল্যুশনঃ ১:১ (১০০ মিলি ডিস্টিল ওয়াটারে ১০০ মিলি নাইট্রিক এসিড যোগ করে প্রস্তুত করতে হবে।
  • ফেনলপথ্যালিন সল্যুশন 0.1% (১০০ মিলি ডিস্টিল ওয়াটারে অথবা ৯০ মিলি ইথানলে 0.1 মিলি ফেনলপথ্যালিন যোগ করে প্রস্তুত করতে হবে।)  
  • ৫% ট্রাইক্লোরো-এসিটিক এসিড সল্যুশনঃ ১০০ মিলি ডিস্টিল ৫ গ্রাম ট্রাইক্লোরো-এসিটিক এসিড যোগ করে প্রস্তুত করতে হবে।
  • ডাই-পটাশিয়াম ফসফেট সল্যুশনঃ 0.1 M (২৫০ মিলি ডিস্টীল ওয়াটারে ৪.৩৫৪২ গ্রাম ডাই-পটাশিয়াম ফসফেট যোগ করে প্রস্তুত করতে হবে।)
  • পটাশিয়াম ফসফেট সল্যুশনঃ 0.1 M (২৫০ মিলি ডিস্টীল ওয়াটারে ৩.৪০৩২ গ্রাম পটাশিয়াম ফসফেট যোগ করে প্রস্তুত করতে হবে।)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here