Urease Activity Test  (ইউরিয়েস এক্টিভিটি টেস্ট)– করার পদ্ধতি || ফিড মিল ল্যাব সমাচার – পর্ব ১৯

প্রিয় পাঠক, ফিড মিলের কোয়ালিটি কন্ট্রোল ল্যাবরেটরিতে অত্যন্ত একটি গুরুত্বপুর্ণ টেস্ট হচ্ছে – Urease Activity Test  (ইউরিয়েস এক্টিভিটি টেস্ট)

Urease Activity Test  (ইউরিয়েস এক্টিভিটি টেস্ট) কেন করা হয়?

ফিড ইন্ডাস্ট্রিতে বহুল ব্যবহৃত অন্যতম প্রোটিন সোর্স সয়াবিন মিল এর ক্ষেত্রে মূলত Urease Activity Test  (ইউরিয়েস এক্টিভিটি টেস্ট) করা হয়ে থাকে। মূলত, সয়াবিন মিলে থাকা এন্টি-নিউট্রিশনাল ফ্যাক্টর গুলো যথেষ্ট তাপের মাধ্যমে ধ্বংস করা হয়েছে কিনা সেটার অনুমান করতেই এই Urease Activity Test  (ইউরিয়েস এক্টিভিটি টেস্ট) করা হয়ে থাকে।

উদ্ভিদজ সোর্স হত আগত যতগুলো প্রোটিন সোর্স রয়েছে তার মধ্যে একমাত্র সয়াবিন মিল ই হচ্ছে কমপ্লিট প্রোটিন যাতে রয়েছে প্রায় ৮ টি এমাইনো এসিড যা মানবদেহ এবং প্রাণি উভয়ের জন্য প্রয়োজনীয়। তবে, পুষ্টি উপাদানের পাশাপাশি সয়াবিনে রয়েছে কিছু এন্টি-নিউট্রিশনাল ফ্যাক্টর, যা প্রাণিদেহে প্রোটিন ডাইজেশনে বাঁধা দেয়। এসকল এন্টি-নিউট্রিশনাল ফ্যাক্টরের মধ্যে রয়েছে – ট্রিপসিন ইনহিবেটরস, লেকটিনস, টেনিনস গৈট্রোজেনস, ফাইটেটস এবং অলিগোস্যাকারাইডস।  

তাই সয়াবিন মিলের পুষ্টি উপাদানের সর্বোচ্চ ফলাফল পেতে এই এন্টি-নিউট্রিশনাল ফ্যাক্টর গুলোকে ইনএকটিভ বা ধ্বংস করা জরুরি এবং সয়াবিন থেকে সয়াবিন মিল তৈরির প্রসেসিং এর সময় প্রয়োজনীয় হিট বা তাপ প্রদানের মাধ্যমে এনজাইমেটিক এক্টিভেশনের মাধ্যমে pH পরিবর্তনের মাধ্যমে এসব এন্টি-নিউট্রিশনাল ফ্যাক্টরকে ডি-একটিভেট করে থাকে।

তবে, একটা নির্দিষ্ট তাপমাত্রায় প্রসেসিং করলে কেবল সয়াবিন মিলের পুষ্টির সর্বোচ্চ ব্যবহার করা সম্ভব। সাধারণত ৯০ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রায় প্রসেসিং করা হলে সর্বোত্তম ফল পাওয়া যায়। ৯০ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রার কম বা বেশি তাপমাত্রায় প্রসেসিং করলে তা সয়াবিন মিলের কোয়ালিটি কমিয়ে ফেলে।

তো চলুন এবার জেনে নিই কিভাবে ল্যাবরেটরিতে এই Urease Activity Test  (ইউরিয়েস এক্টিভিটি টেস্ট) করতে হয়?

ল্যাব টেস্টUrease Activity Test  (ইউরিয়েস এক্টিভিটি টেস্ট)

প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি ও কেমিক্যালঃ

  • স্যাম্পল
  • ব্লেন্ডার মেশিন
  • এনালাইজ্যিক্যাল ব্যালেন্স
  • বিকার – ৫০০ এবং ১০০০ মিলি সাইজ
  • টেস্ট টিউব – ৫০ মিলি সাইজ
  • ফিল্টার পেপার – ১ নং সাইজ
  • ডিজিটাল pH মিটার

প্রয়োজনীয় কেমিক্যালঃ

  • ইউরিয়া
  • ডাই-পটাশিয়াম হাইড্রোজেন ফসফেট ( K2HPO4 )
  • পটাশিয়াম হাইড্রোজেন ফসফেট ( KH2PO4 )

সল্যুশন তৈরির পদ্ধতিঃ

  • পটাশিয়াম বাফার সল্যুশনঃ (PBS)

১। প্রথমে একটি বিকারে ৩.৪০৩ গ্রাম পটাশিয়াম হাইড্রোজেন ফসফেট ( KH2PO4 ) নিয়ে ১০০ মিলি ডিস্টিল ওয়াটারের সাথে মিশাতে হবে।

২। দ্বিতীয়ত অন্য একটি বিকারে ৪.৩৫৪ গ্রাম ডাই-পটাশিয়াম হাইড্রোজেন ফসফেট ( K2HPO4 ) নিয়ে ১০০ মিলি ডিস্টিল ওয়াটারের সাথে মিশাতে হবে।

৩। এবার একটি ১০০০ মিলির বিকারে উপরের দ্রবণ ২ টি একসাথে মিশাতে হবে এবং ১০০০ মিলি পর্যন্ত ডিস্টিল ওয়াটার যোগ করে মিশালে ১০০০ মিলি পটাশিয়াম বাফার সল্যুশন তৈরি হয় যাবে।

  • ইউরিয়া বাফার সল্যুশনঃ (UBS)

১। উপরোক্ত পটাশিয়াম বাফার সল্যুশন থেকে ৫০০ মিলি সল্যুশন অন্য একটি ৫০০ মিলি সাইজের বিকারে নিতে হবে।

২। এবার এই সল্যুশনের মধ্যে ১৫ গ্রাম ইউরিয়া ভালভাবে মিশ্রিত করলে ইউরিয়া বাফার সল্যুশন তৈরি হয়ে যাবে।

Urease Activity Test  (ইউরিয়েস এক্টিভিটি টেস্ট) করার পদ্ধতিঃ

  • প্রথমে ২ টি ৫০ মিলি সাইজের টেস্ট টিউবে প্রতিটিতে আলাদা আলাদা ভাবে ০.২ গ্রাম করে গ্রান্ডিং করা সয়াবিন মিল মেপে নিতে হবে।
  • এবার ১ টি টেস্ট টিউবে ২০ মিলি পটাশিয়াম বাফার সল্যুশন (PBS) যোগ করতে হবে এবং অন্য টেস্ট টিউবে ২০ মিলি ইউরিয়া বাফার সল্যুশন (UBS) যোগ করতে হবে।
  • এখন অন্য একটি ৫০০ মিলি সাইজের বিকারে পানি ভর্তি করে এর মধ্যে উপরোক্ত টেস্ট টিউব ২ টি রেখে ওভেনে কুসুম গরম করে টেস্ট টিউব ২ টি নামিয়ে নিতে হবে।
  • এবার টেস্ট টিউব ২ টির সল্যুশন ১ নং ফিল্টার পেপারের সাহায্যে আলাদা আলাদা ভাবে ফিলট্রেশন করে ভিন্ন ২ টি বিকারে সল্যুশন ২ টি সংগ্রহ করতে হবে।
  • এখন একটি ডিজিটাল pH মিটারের সাহায্যে সল্যুশন ২ টির pH পরিমাপ করতে হবে।
  • সর্বশেষে এই ২ টি pH এর মানের পার্থক্য ই হবে ইউরিয়েস এক্টিভিটির মাণ।

সূত্রঃ Urease Activity = pH (UBS) – pH (PBS)

ফলাফলঃ

সয়াবিন মিলের স্ট্যান্ডার্ড ইউরিয়েস এক্টিভিটির pH এর মানের পার্থক্য হবেঃ ০.০৫ ০.২

এর মানের কম বা বেশি হলে বুঝতে হবে সেই সয়াবিন মিলের কোয়ালিটি ভাল নয়। মাণ ০.০৫ এর নিচে হল বুঝতে হবে অধিক তাপে প্রসেসিং করা হয়েছে এবং মাণ ০.২ এর উপরে হলে বুঝতে হবে কম তাপে প্রসেসিং করা হয়েছে।

মনে রাখতে হবে যে, সর্বদাই ইউরিয়া বাফার সল্যুশন (UBS) এর pH এর মাণ; পটাশিয়াম বাফার সল্যুশন (PBS) এর pH এর মানের থেকে বেশি হবে। কারন, সয়াবিন মিলে উপস্থিত থাকা ইউরিয়েস এনজাইম, ইউরিয়া বাফার সল্যুশন (UBS) এ থাকা ইউরিয়া কে ভেঙ্গে এমোনিয়া এবং কার্বন-ডাই-অক্সাইড তৈরি করে এবং এই এমোনিয়া উক্ত সল্যুশনের pH বৃদ্ধি করবে।

Dr. Srabon Hasan Sajal

DVM, MS (Pathology), PSTU

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here